• শিরোনাম

    আমেরিকার লেচুগুইলা গুহাঃ জিপসামে তৈরি অবাক করা সৌন্দর্য

    তাজুন নেছা রিতু | ০৬ আগস্ট ২০২০


    আমেরিকার লেচুগুইলা গুহাঃ জিপসামে তৈরি অবাক করা সৌন্দর্য

    আমাদের এই গ্রহ আজও রহস্যময় সেটার প্রমাণ পাওয়া গেল আমেরিকায় প্রাকৃতিকভাবে তৈরি এই লেচুগুইলা গুহা থেকে। যা কিনা এত বছর অজানা এবং গুরুত্বহীন ছিল মানুষের কাছে। সেই গুহাই আজ বিস্ময় সৃষ্টি করেছে পুরো পৃথিবীর কাছে।

    ছোট খাটো কোন গুহা নয় এটি।ঢাকা থেকে চিটাগং এর যে দুরত্ব তার থেকেই লম্বা এটি। এর দৈর্ঘ্য ২২২ কিলোমিটার। তবে এটি কিন্তু বিশ্বের দীর্ঘ গুহা নয়। দৈর্ঘের দিক থেকে এটি বিশ্বে অষ্টম।আর গভীরতার দিক থেকে এই গুহা বিশ্বে দ্বিতীয়


    ও ৫০০ মিটারের মতো গভীর। আর তার ফলেই লম্বার দিক থেকে ৮ম ও গভীরতার দিক থেকে ২য়। ১৯৮৬ সালে এক অভিযাত্রী দল এই গুহা আবিষ্কার করেন এবং তারাই এই গুহার নামকরণ করেন। তবে অভিযাত্রীদের ধারণা, এই গুহার দৈর্ঘ্য এবং গভীরতা আরো বেশি  হতে পারে।


    দৈর্ঘ্য বা গভীরতা শুনে যতখানি ভয় লাগছে গুহার ভিতরের সৌন্দর্য তার চেয়েও বেশী অবাক করা।এই গুহার ভিতরে পৌঁছাতে পারে না কোনো  সূর্যের আলো কিন্তু প্রকৃতি নিপুন হাতে সাজিয়ে তুলেছেন এর অন্দরমহল। গুহায় প্রায় সর্বত্রই অসাধারণ সুন্দর স্ফটিক চোখ ধাঁধিয়ে দেয়।

    তবে এই গুহার থেকেও অবাক করেছে গুহার দেওয়াল, সেগুলোতে আগের থেকেই করা ছিল বিস্ময়কর নির্মানশৈলী। সাথে বিভিন্ন আকারের সুন্দর সুন্দর ক্রিস্টাল গুহার ভেতরে, ছোট বড় অনেক ধরনের যা দেখতে ফুলের মতো কোনটা বা প্রাসাদের থামের মতো। বিজ্ঞানীরা সেটা পরে ক্ষতিয়ে দেখেছে, যা জিপসাম থেকে তৈরী। লবন বা চুনাপাথর। এই জিপসামে চারদিক ছেয়ে গেছে, যেদিকে তাকানো যায় জিপসাম। এক কথায় মাইলের পর মাইল জিপসাম।


    এখন সবার মনে প্রশ্ন জাগতেই পারে, এই জিপসাম তৈরী হল কিভাবে?

    অনেক গুহা বৃষ্টির জলে ক্ষয় প্রাপ্ত হয়, আর তার ফলেই ভেতরে অনেক ধরনের আকার তৈরী হয়। এই যে লেচুগুইলা গুহা, সেটা সালফিউরিক এসিডের দ্বারাই ক্ষয় হয়েছে। আর যার ফলেই জিপসাম তৈরী হয়েছে। আর এই জিপসাম গুলো প্রাকৃতিকভাবে এতোটাই সুন্দরভাবে তৈরি হয়েছে  যা দেখে চোখ ফেরাতে ইচ্ছেই করবে না।

    এখানে জিপসামের বিভিন্ন কক্ষ তৈরী হয়েছে। যার মধ্যে একটির নাম দেওয়া হয়েছে শ্যান্ডেলিয়ার বলরুম। সেখানে যে জিপসাম গুলো রয়েছে সেগুলোর দৈর্ঘ্য ২০ ফুটেরও বেশী। অবাক করা গুহার ভেতরের সৌন্দর্য। যতই ভিতরে ঢোকা যায় ততই এর রহস্য উন্মোচিত হয়। সূর্যের আলোর অনুপস্থিতিতে তৈরি এই গুহাই এখন পর্যটকদের প্রধান আকর্ষণ।

    Facebook Comments

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আর্কাইভ

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
     
    ১০১১১২
    ১৩১৪১৫১৬১৭১৮১৯
    ২০২১২২২৩২৪২৫২৬
    ২৭২৮২৯৩০৩১