• শিরোনাম

    কানাডার প্রথম প্রধানমন্ত্রীর মূর্তি উচ্ছেদ করলো সাধারণ জনগণ

    দি গাংচিল ডেস্ক | ৩০ আগস্ট ২০২০


    কানাডার প্রথম প্রধানমন্ত্রীর মূর্তি উচ্ছেদ করলো সাধারণ জনগণ

    মন্ট্রিয়ালের নেতাকর্মীরা কানাডার প্রথম প্রধানমন্ত্রী স্যার জন এ ম্যাকডোনাল্ডের একটি মূর্তি টেনে নামিয়েছেন, যিনি উনিশ শতকের শেষদিকে অনেক আদিবাসীদের হত্যা করার নিষ্ঠুর নীতিগুলির সাথে যুক্ত ছিলেন।

    প্রতিকৃতির মাথাটি উড়ে যাওয়ার সময় কাছাকাছি ফুটপাতে হোচট খেয়ে পরার মুহুর্তে ভিডিও ধারণ করা হয়েছে।
    কিউবেকের সরকার প্রধান এটিকে “অগ্রহণযোগ্য” বলে নিন্দা করেছেন। ফ্রান্সোয়েস লেগল্ট বলেছেন” ইতিহাসের কিছু অংশ ধ্বংস করা সমাধান নয়”।কানাডার সম্প্রচারক সিবিসি অনুসারে কাউকে গ্রেপ্তার করা হয়নি।


    ম্যাকডোনাল্ড ১৮৬০-১৮৯০ এর দশকে ১৯ বছর কানাডার প্রধানমন্ত্রী ছিলেন।তাকে তার দেশ গঠনের নীতিগুলির জন্য স্মরণ করা হয় তবে তিনি আবাসিক স্কুল ব্যবস্থাও তৈরি করেছিলেন।

    প্রায় দুই দশকে তিনি কমপক্ষে ১৫০,০০০ আদিবাসী বাচ্চাকে তাদের বাসা থেকে জোর করে সরিয়ে নিয়েছিলেন এবং তাদের রাষ্ট্রীয় অনুদানযুক্ত বোর্ডিং স্কুলে পাঠিয়েছিলেন। অনেক শিশুদের নির্যাতন করা হয়েছিল এবং এদের মধ্যে অনেকে মারা গিয়েছিল। তাদের নিজস্ব ভাষায় কথা বলতে বা তাদের সংস্কৃতি অনুশীলন করতে নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছিল।


    ২০১৫ সালে একটি সরকারী প্রতিবেদন এবিষয়টিকে “সাংস্কৃতিক গণহত্যা” বলে অভিহিত করেছে।

    তাঁর বিরুদ্ধে দুর্ভিক্ষ ও রোগের কারণে অনেক আদিবাসী মানুষকে হত্যা করার অভিযোগ আছে। তার সরকার কিছু প্রধান আদিবাসী সম্প্রদায়কে তাদের ঐতিহ্যবাহী আবাসস্থল ছেড়ে চলে যেতে বাধ্য করেছিল, তারা তা না করা পর্যন্ত খাদ্য সরবরাহ আটকে রেখেছিল।


    প্রতিবাদে বিতরণ করা লিফলেটটিতে জন ম্যাকডোনাল্ডকে সম্পর্কে লেখা হয়েছে “একজন সাদা আধিপত্যবাদী যিনি নির্মম আবাসিক স্কুল ব্যবস্থা তৈরি করে আদিবাসীদের উপর গণহত্যা চালিয়েছিলেন”।

    এতে বলা হয়েছে যে নগরীর মেয়র, ভ্যালারি প্লান্টাকে এই মূর্তিটি সরিয়ে দেওয়ার জন্য আবেদন করা হয়েছিল কিন্তু তার “নিষ্ক্রিয়তার” কারণে একদল নেতাকর্মী বিষয়টির সমাধান তাদের হাতে করার সিদ্ধান্ত নেয়।

    দাসত্ব, সাম্রাজ্য এবং বর্ণবাদের সাথে জড়িত নেতাদের কীভাবে স্মরণ করা উচিত তা নিয়ে সাম্প্রতিক মাসগুলিতে বিশ্বব্যাপী বিতর্কিত ঐতিহাসিক নেতাদের বেশ কয়েকটি মূর্তি নিয়ে সমালোচনার ঝড় বয়ে যাচ্ছে।

    Facebook Comments

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আর্কাইভ

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
     
    ১০১১১২১৩১৪১৫১৬
    ১৭১৮১৯২০২১২২২৩
    ২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০
    ৩১