• শিরোনাম

    গঙ্গা, ব্রহ্মপুত্র অববাহিকায় বন্যা পরিস্থিতির আরও অবনতি হতে পারে!

    দি গাংচিল ডেস্ক | ২১ আগস্ট ২০২০


    গঙ্গা, ব্রহ্মপুত্র অববাহিকায় বন্যা পরিস্থিতির আরও অবনতি হতে পারে!

    বৃহস্পতিবার উজান থেকে নেমে আসা ঢলের কারণে প্রধান প্রধান নদীগুলোর জলের স্তর বাড়তে থাকায় গঙ্গা ও ব্রহ্মপুত্র অববাহিকায় চলমান বন্যা পরিস্থিতির আরও অবনতি হতে পারে।

    বন্যা পূর্বাভাস ও সতর্কতা কেন্দ্রের (FFWC) সর্বশেষ পূর্বাভাসে জানানো হয়েছে গঙ্গা-পদ্মা নদীর জল ক্রমবর্ধমান বৃদ্ধি প্রবণতায় রয়েছে যা আগামী ২৪ ঘন্টা অবধি অব্যাহত থাকতে পারে এবং ব্রহ্মপুত্র-যমুনা নদীর জলের স্তর বাড়তে থাকবে বলে জানিয়েছে।


    FFWC জানিয়েছে, বগুড়া ও টাঙ্গাইলের বন্যার পরিস্থিতি আগামী সাত দিনে অব্যাহত থাকার সম্ভাবনা রয়েছে এবং বগুড়ার সারিয়াকান্দি ও টাঙ্গাইলের এলাসিন স্টেশনের জলের স্তর বাড়তে পারে, ।

    কুড়িগ্রামের চিলমারী পয়েন্ট, গাইবান্ধার ফুলছড়ি পয়েন্ট, কাজিপুর ও সিরাজগঞ্জ পয়েন্ট ও জামালপুরের বাহাদুরাবাদ পয়েন্ট এ জলের স্তর বাড়তে থাকলেও পরের দশ দিনের মধ্যে এই পয়েন্টগুলিতে বিপদসীমার উপরে জল প্রবাহের সম্ভাবনা নেই।


    গঙ্গা-পদ্মা নদীর পানির স্তর ধারাবাহিকভাবে বৃদ্ধি পেতে পারে। রাজবাড়ীর গোয়ালন্দ পয়েন্ট, মুন্সীগঞ্জের ভাগ্যকুল পয়েন্ট এবং শরীয়তপুর জেলার সুরেশ্বর পয়েন্ট নদীর জলের স্তর বাড়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

    ফলস্বরূপ, রাজবাড়ী ও শরীয়তপুরের নিম্ন-নিম্ন অঞ্চলে বন্যার পরিস্থিতি আগামী ৭ দিন অব্যাহত থাকতে পারে। মুন্সীগঞ্জের ভাগ্যকুল পয়েন্ট এ পানির স্তর আজ বিপদসীমা ছাড়িয়ে যেতে পারে।


    ঢাকা শহরের আশেপাশে নদ-নদীর পানি বাড়ার সম্ভাবনা রয়েছে এবং নারায়ণগঞ্জের শীতলক্ষ্যা নদী্র পানি বৃদ্ধি অব্যাহত থাকবে এবং বিপদসীমা অতিক্রম করবে, যার ফলে নারায়ণগঞ্জের নিম্নাঞ্চলে বন্যার সৃষ্টি হবে।

    মানিকগঞ্জ, রাজবাড়ী ও ফরিদপুর জেলার নিম্ন-স্থল অঞ্চলে বন্যার পরিস্থিতি আগামী ২৪ ঘন্টা স্থিতিশীল থাকতে পারে।

    বাংলাদেশ আবহাওয়া অধিদফতরের সংখ্যাসূচক মডেল অনুসারে, আগামী ২৪ ঘন্টার মধ্যে দেশের দক্ষিণ-পশ্চিম ও দক্ষিণ-মধ্য উপকূলীয় অঞ্চলে মাঝারি থেকে ভারী বৃষ্টি হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। এই সময়ে নদীর অঞ্চলগুলি দ্রুত বৃদ্ধি পেতে পারে।

    দেশের উত্তর-পূর্বাঞ্চলে মেঘনা অববাহিকার প্রধান নদীগুলি উচ্চ ঝুঁকির প্রবণতায় রয়েছে যা পরের ২৪ ঘন্টায় কমতে পারে। রাজশাহী, হার্ডিঞ্জ ব্রিজ, তালবাড়িয়া ও গোয়ালন্দ পয়েন্টে আজ সকালে পানির স্তর বাড়ার প্রবণতা রেকর্ড করা হয়েছে।

    চাঁপাইনবাবগঞ্জের পানখা পয়েন্টে গঙ্গা নদীর পানি ১৪ সেন্টিমিটার উপরে প্রবাহিত হয়েছে। আজ সকালে রাজশাহী পয়েন্টে সাত সেন্টিমিটার, হার্ডিঞ্জ ব্রিজ পয়েন্টে চার সেমি এবং তালবাড়িয়া পয়েন্টে ১১ সেন্টিমিটার উপরে প্রবাহিত হচ্ছে ।

    Facebook Comments

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    বিদায় ফুটবল ঈশ্বর!

    ২৫ নভেম্বর ২০২০

    আর্কাইভ

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
     
    ১০১১১২
    ১৩১৪১৫১৬১৭১৮১৯
    ২০২১২২২৩২৪২৫২৬
    ২৭২৮২৯৩০৩১