• শিরোনাম

    ‘চুরি করাই ছিলো মূল উদ্দেশ্য’, ইউএনও হামলায় প্রধান সন্দেহভাজন এর স্বীকারোক্তি

    দি গাংচিল ডেস্ক | ০৫ সেপ্টেম্বর ২০২০


    ‘চুরি করাই ছিলো মূল উদ্দেশ্য’, ইউএনও হামলায় প্রধান সন্দেহভাজন এর স্বীকারোক্তি

    ঘোড়াঘাট ইউএনও ওয়াহিদা খানমের উপর হামলার মূল সন্দেহভাজন ব্যাক্তি এই ঘটনায় তার জড়িত থাকার কথা স্বীকার করেছে।সে জানায় তারা চুরি করার জন্যই এই হামলা চালিয়েছে।

    শুক্রবার সন্ধ্যায় রংপুরে এক সংবাদ সম্মেলনে র‌্যাব -১৩ এর কমান্ডিং অফিসার রেজা আহমেদ ফেরদৌস এ তথ্য জানান।


    তিনি আরও বলেন, “আরও তদন্তের পরে বিষয়গুলো পরিষ্কার হবে” ।

    এর আগে র‌্যাব সদস্যরা প্রধান সন্দেহভাজন আসাদুলের কাছ থেকে প্রাপ্ত তথ্য অনুযায়ী শান্তু ও নবিরুল নামের আরও দুজন সন্দেহভাজনকে আটক করে।শুক্রবার ভোরে র‌্যাব ও পুলিশ সদস্যরা যৌথ অভিযানে দিনাজপুর জেলার হিলি এলাকার কালীগঞ্জ থেকে আসাদুলকে গ্রেপ্তার করে।


    বৃহস্পতিবার উপজেলা পরিষদ চত্বরে নিজ বাড়িতে দুর্বৃত্তদের হামলায় উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) ওয়াহিদা খানম গুরুতর আহত হন।

    তিনি এখন জাতীয় ইনস্টিটিউট অব নিউরোসায়েন্স অ্যান্ড হসপিটাল এ চিকিৎসাধীন রয়েছেন।


    হাসপাতালের যুগ্ম পরিচালক ডাঃ বদরুল আলম বলেছেন, “বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ৯ টা থেকে রাত ১১ টা পর্যন্ত চিকিৎসকরা অস্ত্রোপচারের পর তার অবস্থা স্থিতিশীল। তিনি নিবিড় পরিচর্যা ইউনিটে (আইসিইউ) চিকিৎসাধীন রয়েছেন। ”

    আইসিইউ এর চিকিৎসকরা জানিয়েছেন যে,” তিনি (ওয়াহিদা) এখন স্থিতিশীল এবং আজ তারা কিছু পরীক্ষা নিরীক্ষা করবেন।”

    Facebook Comments

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    বিদায় ফুটবল ঈশ্বর!

    ২৫ নভেম্বর ২০২০

    আর্কাইভ

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
     
    ১০১১১২১৩১৪১৫১৬
    ১৭১৮১৯২০২১২২২৩
    ২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০
    ৩১