• শিরোনাম

    সার ব্যবস্থাপনায় সুশাসন প্রতিষ্ঠা করেছে বর্তমান সরকার: কৃষিমন্ত্রী

    দি গাংচিল ডেস্ক | ০৬ সেপ্টেম্বর ২০২০


    সার ব্যবস্থাপনায় সুশাসন প্রতিষ্ঠা করেছে বর্তমান সরকার: কৃষিমন্ত্রী

    বর্তমান সরকার মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে কৃষিবান্ধব সার ব্যবস্থাপনায় সুশাসন প্রতিষ্ঠা করেছে বলে উল্লেখ করেন কৃষিমন্ত্রী ড. মো. আব্দুর রাজ্জাক। ফলে, এখন দেশে সার নিয়ে কোন সংকট নেই। কৃষকের সার নিয়েও কোন কষ্ট নেই।

    রোববার ‘সার বিষয়ক জাতীয় সমন্বয় ও পরামর্শক কমিটির’ সভায় যা কৃষি মন্ত্রণালয় হতে আয়োজিত, সেখানে মন্ত্রী সভাপতির বক্তব্যে এ কথা বলেন।


    সভায় কৃষি মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি ও সাবেক কৃষিমন্ত্রী বেগম মতিয়া চৌধুরী, শিল্পপ্রতিমন্ত্রী কামাল আহমেদ মজুমদার, শিল্পমন্ত্রী নূরুল মজিদ মাহমুদ হুমায়ূন, মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের সচিব রওনক মাহমুদ ও শিল্পসচিব কে এম আলী আজমসহ কমিটির সদস্যবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। সভাটি কৃষিসচিব মো. নাসিরুজ্জামান সঞ্চালনা করেন।

    কৃষিমন্ত্রী বলেন, বর্তমান সরকার কৃষি উৎপাদনের উপর সর্বোচ্চ গুরুত্ব প্রদান করে ২০০৮ সালে ক্ষমতায় এসে শুরু থেকেই। প্রথমেই সিদ্ধান্ত গ্রহণ করে সারের দাম কমানোর। এমনকি টিএসপি ৮০ টাকা থেকে ২২ টাকা, পটাশিয়াম ৭০ টাকা থেকে ১৫ টাকা এবং ডিএপি সারের দাম ৯০ টাকা থেকে কমিয়ে ২৮ টাকা নির্ধারিত হয়। এটি একটি প্রচন্ড যুগান্তকারী সিদ্ধান্ত ছিল। কৃষকসহ অন্যান্য সকলের সম্মিলিত প্রচেষ্টা এবং সারের দাম কমানো সিদ্ধান্তর ফলেই বাংলাদেশ বেড়েছে কৃষি উৎপাদনে এবং আজ দানাদার জাতীয় খাদ্যে স্বয়ংসম্পূর্ণ হয়েছে দেশ।


    সভায় চলমান ২০২০-২১ অর্থবছরে সম্প্রসারিত ও নিবিড় চাষাবাদের প্রয়োজনে রাসায়নিক সারের চাহিদা পুনঃনির্ধারণ কৃত হয়েছে। এতে অতিরিক্ত ২ লাখ মেট্রিক টন ডিএপি সার ও ১ লাখ মেট্রিক টন ইউরিয়া সংগ্রহের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। চলমান অর্থবছরে ডিএপি ১৫ লাখ মেট্রিক টন, ইউরিয়া ২৫ লাখ ৫০ হাজার মেট্রিক টন, এমওপি, জিপসাম, টিএসপি প্রভৃতিসহ সকল রাসায়নিক সারের চাহিদা প্রায় ৬০ লাখ মেট্রিক টন নির্ধারণ করা হয়েছে।

    Facebook Comments


    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আর্কাইভ

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
     
    ১০১১১২
    ১৩১৪১৫১৬১৭১৮১৯
    ২০২১২২২৩২৪২৫২৬
    ২৭২৮২৯৩০৩১