• শিরোনাম

    সিজারিয়ান -কাঁচি ভাবলেই কেঁচিয়ে যাবে / দেবাশিস লাহা

    | ১২ আগস্ট ২০২০


    সিজারিয়ান -কাঁচি ভাবলেই কেঁচিয়ে যাবে / দেবাশিস লাহা

    সিজার করে বাচ্চা হয়েছে শুনলেই সিংহভাগ মানুষের কাঁচির কথাই মনে আসে। পেট কেটে বাচ্চা বের করতে তো কাঁচিই লাগে ( যদিও এক্ষেত্রে মোটেই কাঁচি ব্যবহার করা হয়না।

    শল্য চিকিৎসায় কণামাত্র জ্ঞান রাখেন এমন ব্যক্তিও জানেন।) এই পদ্ধতিকে সংক্ষেপে C-section বলেই চিহ্নিত করা হয়। অর্থাৎ Caesarean section! কী, এবার নিশ্চয় বুঝতে পারছেন scissors ( কাঁচি) আর Caesarean এক বস্তু যেহেতু নয়, তাই বানানেও আকাশপাতাল ফারাক৷ Scissors থেকে নয় Caesar থেকেই এই Caesarean শব্দটির উৎপত্তি।


    কিন্তু Caesar ( সিজার) তো রোম্যান সম্রাটদের উপাধি। মোট বারো জন সিজারের উল্লেখ পাওয়া যায়। সিজার উপাধি প্রথম ব্যবহার করেন সম্রাট অগাস্টাস (Augustus) ইনি ২৭ খ্রিস্ট পূর্বাব্দ থেকে ১৪ খ্রিস্টাব্দ পর্যন্ত রোম শাসন করেন। হ্যাঁ এঁর নাম থেকেই অগাস্ট মাসটির নামকরণ হয়। ইংরেজি ভাষায় august শব্দটি শ্রদ্ধেয়, সম্মানিত অর্থে ব্যবহৃত হয়।

    আর সিজার যে শ্রদ্ধেয় হবেন, বলাই বাহুল্য। রোমুলাস অগাস্টাস সর্বশেষ সিজার। ইনি খণ্ডিত রোম্যান সাম্রাজ্যের পূর্ব অংশটির ( Western Roman Empire) শাসক ছিলেন। ৪৬০ থেকে ৪৭৬ খ্রিস্টাব্দ পর্যন্ত ।


    যাঁরা কিঞ্চিৎ ইতিহাস চর্চা করেন, ইতিমধ্যেই বুঝে গেছেন এই রোমুলাসকে পরাজিত করেই ওডোয়াসার নামক এক জার্মান বারবারিয়ান ( barbarian) সাম্রাজ্যের দখল নেন। কিন্তু “পেট কেটে ” বাচ্চা হওয়ার সঙ্গে সিজারের কী সম্পর্ক? মাথায় কিছু ঢুকছে? আসুন, বিস্তারিত জেনে নিই। ১২ জন সিজারের মধ্যে সর্বাপেক্ষা বিখ্যাত, শক্তিশালী, প্রভাবশালী এবং বিতর্কিত কে ছিলেন বলুন তো?

    অবশ্যই জুলিয়াস সিজার৷ এই মহাপ্রতাপশালী সম্রাট ৪৯ থেকে ৪৪ খ্রিস্টপূর্ব পর্যন্ত অর্থাৎ মাত্র পাঁচ বছরেই খ্যাতি, কুখ্যাতি, বিতর্কের চূড়ায় পৌঁছে যান৷ একের পর এক যুদ্ধ জয়, অতুলনীয় বীরত্ব দেখিয়ে একদিকে তিনি যেমন চরম প্রিয় হয়ে ওঠেন, মিশরীয় রাণী ক্লিওপেট্রার সঙ্গে প্রণয়, সহবাস তাঁকে রোম্যানদের চোখে তেমনই অপ্রিয় করে তোলে। অবশেষে বিশ্বস্ত বন্ধু, সেনাপতি, সেনেটর ব্রুটাসের হাতে তাঁকে মরতে হয়।


    এই বিতর্কিত জুলিয়াস সিজার এই পদ্ধতিতে জন্মগ্রহণ করেন বলেই Caesar থেকে Caesarean শব্দটির উৎপত্তি। হ্যাঁ ইতিহাস তেমনই বলছে৷ কিন্তু তিনিই কি প্রথম? তাঁর আগে কেউ এই পদ্ধতিতে জন্ম গ্রহণ করেন নি? করতেই পারে। কিন্তু সম্রাট জুলিয়াস সিজারের মত বিশ্ববিখ্যাত নিশ্চয় নন। কে না জানে এসব ক্ষেত্রে বিখ্যাতদের নামই জড়িয়ে যায়। হ্যাঁ এভাবেই Caesarean section বা C-section পরিভাষাটির উৎপত্তি।
    কিন্তু প্রচলিত ইতিহাসটি ( জুলিয়াস সিজার এই পদ্ধতিতে জন্মেছিলেন) কি প্রশ্নাতীত? বিন্দুমাত্র সন্দেহ নেই? জুলিয়াস সিজারকে কি এভাবেই জন্মেছিলেন? সাম্প্রতিক গবেষণা ভিন্ন কথা বলছে।

    জুলিয়াস সিজারের জন্ম হয় ১০০ খ্রিস্টপূর্ব, জুলাই মাসের ১৩ তারিখ৷ সেই সময় এজাতীয় পদ্ধতি অবশ্যই প্রচলিত ছিল। কিন্তু চিকিৎসা শাস্ত্র যথেষ্ট উন্নত না হওয়াতে কেবলমাত্র মুমূর্ষু বা মৃত নারীর ক্ষেত্রেই প্রয়োগ করা হত। অর্থাৎ মায়ের মৃত্যু ঘটত, সন্তানের জীবন বাঁচানো হত। অন্যথায় এই প্রক্রিয়া একেবারেই নিষিদ্ধ ছিল। তথ্য বলছে জুলিয়াস সিজারের মা অরেলিয়া ৫৪ খ্রিস্টপূর্ব পর্যন্ত জীবিত ছিলেন। অর্থাৎ সিজারের জন্মের পর প্রায় পঞ্চাশ বছর। যা এক্ষেত্রে অসম্ভব ছিল।

    কৌতূহল জাগতেই পারে Caesar শব্দটি কীভাবে এলো? এ নিয়েও সুনির্দিষ্ট কিছু বলা কঠিন। তবে একটি মতই বেশিরভাগ ঐতিহাসিক মেনে নিয়েছেন। Caesaries লাটিন শব্দটি থেকেই Caesar শব্দটি এসেছে। যার অর্থ দীর্ঘ, সুন্দর চুল। Long, flowing, beautiful hair! সিজার পরিবারে এমন চুল রাখার রীতি / প্রচলন ছিল। ( যদিও সেসময় অনেকেই এমন চুল রাখতেন) তাই Caesarean থেকেই Caesar!

    কী দাঁড়ালো? সিজারের সঙ্গে কাঁচির কোনো সম্পর্ক নেই। Caesar আর Scissors একাকার হয়ে যাওয়া মানেই কেস কেঁচিয়ে যাওয়া!

    -দেবাশিস লাহা/কোলকাতা,ভারত।

    Facebook Comments

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আর্কাইভ

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
     
    ১০১১১২১৩১৪১৫১৬
    ১৭১৮১৯২০২১২২২৩
    ২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০
    ৩১