• শিরোনাম

    অধিনায়ক বিরাটের বিদায়

    দি গাংচিল ডেস্ক | ১২ অক্টোবর ২০২১


    অধিনায়ক বিরাটের বিদায়

    কলকাতা নাইট রাইডার্সের কাছে চার উইকেটে হেরে আইপিএল থেকে বিদায় নিয়েছে বিরাট কোহলীর রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালোর। ম্যাচ শেষে অধিনায়কের মুখে ভবিষ্যতের বার্তা। ব্যাঙ্গালোর দলে তরুণদের সুযোগ দেওয়ার সংস্কৃতি তৈরি করে সরে দাঁড়ালেন তিনি। এই দলের হয়ে আর অধিনায়কত্ব করতে দেখা যাবে না তাকে। 

    আরসিবি অধিনায়ক বলেন, ‘‘আমি সব সময় একটা জিনিস চেষ্টা করে গিয়েছি, যাতে নতুন ক্রিকেটাররা উঠে আসে এবং নিজেদের প্রকাশ করে। ভারতের হয়েও একই কাজ করেছি। এটুকু বলতে পারি আমি আমার ১২০ শতাংশ দিয়েছি এই দলের জন্য। পরেও ক্রিকেটার হিসেবে দেব। যে দায়িত্ব নেবে, এটাই তার জন্য সেরা সময়।’’


    অধিনায়কত্ব ছাড়লেও আরসিবি দলেই থাকছেন বিরাট। সেটাও স্পষ্ট করে দেন তিনি। বিরাট বলেন, ‘‘বিশ্বাসযোগ্যতা সবচেয়ে বড় কথা। আমি যতদিন আইপিএল খেলব ততদিন আরসিবি-র হয়েই খেলব।’’

    সোমবার হারের জন্য নিজের দলের ব্যর্থতার থেকেও কেকেআর বোলারদের বেশি কৃতিত্ব দিলেন বিরাট। তিনি বলেন, ‘‘মাঝের ওভারগুলোতে দারুণ বল করেছে কেকেআর স্পিনাররা। নিয়মিত উইকেট পেয়েছে। আমারা ভাল শুরু করলেও শেষ পর্যন্ত বড় রান করতে পারিনি। যে জায়গায় ওরা বল ফেলেছে সেখানে মারা কঠিন।’’


    চার উইকেট নেওয়ার পাশাপাশি ব্যাট হাতে ১৫ বলে ২৬ রান করা সুনীল নারাইনের আলাদা করে  প্রশংসা করেন বিরাট। তিনি বলেন, ‘‘ও সব সময় অসাধারণ। আজও দারুণ খেলেছে। গোটা আইপিএলেই নিয়মিত উইকেট নিয়েছে। শুধু নারাইন নয়, সঙ্গে শাকিব আল হাসান ও বরুণ চক্রবর্তী, তিন জনেই দারুণ বল করেছে। আমাদের ব্যাটাদের উপর চাপ তৈরি করেছে। সেই কারণে আমরা বড় শট খেলতে পারিনি।”

    শেষ দিকে এক ওভারে হার্ষেল প্যাটেল দুই উইকেট নিয়ে কিছুটা লড়াইয়ে ফিরিয়েছিলেন আরসিবিকে। তবে শেষ রক্ষা হয়নি। নিজের দলের বোলাদের এই লড়াকু মানসিকতার প্রশংসা করেছেন বিরাট।


    তিনি বলেন, ‘‘শেষ মুহূর্ত অবধি লড়াই করাই এই মৌসুমে আমাদের দলের বিশেষত্ব। মাঝে একটা ওভার আমাদের খারাপ হয়েছিল। আর সেটাই ম্যাচটা বার করে দেয়। তবুও আমরা চেষ্টা করেছি। আরও ১৫ রান করতে পারলে, সঙ্গে কিছু ভাল ওভার বল করতে পারলে ফল অন্য রকম হতে পারত।’’

    Facebook Comments

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    বিদায় ফুটবল ঈশ্বর!

    ২৫ নভেম্বর ২০২০

    আর্কাইভ

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
     
    ১০১১১২১৩১৪১৫
    ১৬১৭১৮১৯২০২১২২
    ২৩২৪২৫২৬২৭২৮২৯
    ৩০৩১