• শিরোনাম

    পুলিশ হেফাজতে মৃত্যুর তথ্য উদঘাটনে তিন সদস্যের তদন্ত কমিটি

    মোঃ ফরহাদ হোসেন, লালমনিরহাট জেলা প্রতিনিধি | ০৯ জানুয়ারি ২০২২


    পুলিশ হেফাজতে মৃত্যুর তথ্য উদঘাটনে তিন সদস্যের তদন্ত কমিটি

    পুলিশ হেফাজতে মৃত্যু

    লালমনিরহাটের হাতীবান্ধা উপজেলায় পুলিশ হেফাজতে স্ত্রীর মৃত্যুর কারণ জিজ্ঞাসাবাদের জন‌্য আটক হিমাংশু বর্মণের মৃত্যুর ঘটনায় ৩ সদস‌্যের একটি তদন্ত কমিটি গঠন করে তিনদিনের মধ্যে প্রতিবেদন জমা দেওয়ার আদেশ দিয়েছে জেলা পুলিশ।

    জানা গেছে, শুক্রবার (৭জানুয়ারী) সকালে উপজেলার ভেলাগুড়ি ইউনিয়নের পুর্ব কাদমা এলাকায় নিজ বাড়িতে হিমাংশু বর্মণের স্ত্রী সাবিত্রী রানীর মৃত্যুর খবর পেয়ে সন্দেহ হওয়ায় হাতীবান্ধা থানা পুলিশকে খবর দেন এলাকাবাসী। পরে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে সাবিত্রী রানীর মরদেহ উদ্ধার করে।


    ওইদিনই বেলা সাড়ে ১১টার দিকে হাতীবান্ধা থানার অফিসার্স ইনচার্জ (ওসি) এরশাদুল আলমসহ একদল পুলিশ সেখানে উপস্থিত হয়। সাবিত্রী রানীর মৃত্যুতে সন্দেহ থাকায় মরদেহসহ জিজ্ঞাসাবাদের জন্য হিমাংশু বর্মণ ও তার বড় মেয়ে পিংকীকে (১৩) থানায় নিয়ে যাওয়া হয়। হিমাংশু বর্মণকে জিজ্ঞাসাবাদ শেষে থানার একটি রুমে একা রাখলে সেইসময় তার রহস্যজনক মৃত্যু হয়।

    শুক্রবার রাত ১২টার দিকে হাতীবান্ধা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে গিয়ে মরদেহের প্রাথমিক তদন্ত করেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সামিউল আমিন। তবে পুলিশ বলছে হিমাংশু বর্মণ থানার রুমে থাকা অপটিক্যাল ফাইবার ক্যাবল (ওয়াইফাই) এর তার পেচিয়ে আত্মহত্যা করেছে। তার গলায় দাগ আছে বলে নিশ্চিত করেছেন হাতীবান্ধা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক মেডিকেল অফিসার হিরন্ময় বর্মণ সাগর।


    শনিবার (৮ জানুয়ারী) সকালে ময়নাতদন্তের জন্য হিমাংশু বর্মণের মরদেহ লালমনিরহাট সদর হাসপাতালে মর্গে প্রেরণ করা হয়। এ ঘটনায় এলাকার জনগণ এবং সনাতণ ধর্মাবলম্বী হিন্দু সম্প্রদায়ের লোকজনের মাঝে ক্ষোভ এবং মিশ্র প্রতিক্রিয়া দেখা দিয়েছে। এলাকাবাসী ও পরিবারের অভিযোগ পুলিশের নির্মম নির্যাতনে তার মৃত্যু হতে।

    হিমাংশু বর্মণের মরদেহে হত্যাকান্ডের আলামত উদ্ধার এবং প্রয়োজনীয় তথ্য উদঘাটনের জন্য সঠিক তদন্তের দাবী জানিয়েছেন তার পরিবার এবং হাতীবান্ধা উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি লিয়াকত হোসেন বাচ্চু।


    রবিবার (৯জানুয়ারী) লালমনিরহাট পুলিশ সুপার আবিদা সুলতানা তিন সদস্যের কমিটি গঠনের তথ‌্য নিশ্চিত করে জানান, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার এ (সার্কেল) মারুফা জামানকে প্রধান করে, ডিবি পুলিশের ওসি আমিরুল ইসলাম ও কোর্ট ইন্সপেক্টর জাহাঙ্গীর আলমকে সদস্য করা হয়েছে।

    তিনি আরও জানান, হিমাংশু রায়ের আত্নহত‌্যার ঘটনায় পুলিশের দায়িত্ব পালনে কোনো অবহেলা ছিলো কি না তা দেখতে জেলা পুলিশের পক্ষ থেকে ৩ সদস‌্যের একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। ওই কমিটি ৩ কর্ম দিবসের মধ‌্যে তদন্ত প্রতিবেদন দাখিল করবেন। তদন্ত প্রতিবেদন পেলে প্রয়োজনীয় ব‌্যবস্থা নেয়া হবে।

     

    Facebook Comments

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আর্কাইভ

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
    ১০১১১২১৩১৪
    ১৫১৬১৭১৮১৯২০২১
    ২২২৩২৪২৫২৬২৭২৮
    ২৯৩০৩১