• শিরোনাম

    বাটলার ঝড়ে বিধ্বস্ত অস্ট্রেলিয়া

    সুজিত মন্ডল | ০৭ সেপ্টেম্বর ২০২০


    বাটলার ঝড়ে বিধ্বস্ত অস্ট্রেলিয়া

    করোনাভাইরাস মহামারীর প্রকোপ কাটিয়ে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ফেরার পর জয়রথ যেন থামছেই না বর্তমান বিশ্বচ্যাম্পিয়ন ইংল্যান্ডের। জুলাই মাস থেকে শুরু হওয়া তাদের এই যাত্রায় পরাজিত করেছেন ওয়েস্ট ইন্ডিজ এবং পাকিস্তানকে।

    তবে ওয়ানডে চ্যাম্পিয়ন হওয়া সত্বেও টেস্ট, ওয়ানডে এবং টি-টোয়েন্টি সব জায়গাতেই নিজেদেরকে শ্রেষ্ঠ প্রমাণ করে চলেছেন ইংল্যান্ড দলের ক্রিকেটাররা।


    সেই ধারাবাহিকতায় দেশের মাটিতে এবার অস্ট্রেলিয়াকেও নাস্তানাবুদ করছে ইংলিশরা। অস্ট্রেলিয়ার সাথে নির্ধারিত তিন ম্যাচ সিরিজের প্রথম টি-টোয়েন্টিতে ইংল্যান্ড জয়লাভ করে ২ রানে। আবার গতকাল রাতে সিরিজের দ্বিতীয় ম্যাচেও ৭ উইকেটের বড় ব্যবধানে অস্ট্রেলিয়াকে পরাজিত করেছে ইংল্যান্ড।

    সেই সাথে ১ ম্যাচ বাকি থাকতেই টি-টোয়েন্টি সিরিজ জয় নিশ্চিত করলো ইংল্যান্ড। গতকাল সাউদাম্পটন এর রোজ বোলের মাঠে ইংলিশ ব্যাটসম্যান জস বাটলারের নৈপুণ্যে ধরাশায়ী হয় অস্ট্রেলিয়া।


    ম্যাচের শুরুতে টস নামক ভাগ্য পরীক্ষায় জয়ী হয় অস্ট্রেলিয়া দলের অধিনায়ক অ্যারন ফিঞ্চ এবন তিনি ব্যাটিং করার সিদ্ধান্ত নেন। নির্ধারিত ২০ ওভারে অস্ট্রেলিয়া ৭ উইকেটের বিনিময়ে ১৫৭ রান করতে সমর্থ হয়।

    ব্যাটিং এ নেমে প্রথমেই ব্যাটিং বিপর্যয়ে পড়ে অস্ট্রেলিয়া। দলীয় মাত্র ৩ রানের মধ্যেই গুরুত্বপূর্ণ ব্যাটসম্যান ডেভিড ওয়ার্নার এবং অ্যালেক্স কেরি আউট হয়ে যান। এরপর পঞ্চম ওভারের সময় ৭ বল থেকে ১০ রান করে রান আউট হয়ে সাজঘরে ফেরেন স্টিভেন স্মিথ।


    দলের হয়ে সব থেকে বেশি রান করেন অ্যারন ফিঞ্চ। ৩৩ বল থেকে তিনি সংগ্রহ করেন ৪০ রান। সেই সাথে ২৬ বল খেকে ৩৫ রান করেন মার্কাস স্টয়নিস। ১৮ বলে ২৬ রান করেন ম্যাক্সওয়েল এবং ২০ বল থেকে ২৩ রান করেন অ্যাস্টন অ্যাগার।

    অস্ট্রেলিয়ার দেওয়া ১৫৮ রানের জবাবে খেলতে নেমে শুরু থেকেই বিধ্বংসী ব্যাটিং করেন ইংল্যান্ড দলের ব্যাটসম্যান জস বাটলার। তার নৈপুণ্যেই ম্যাচের ৭ বল বাকি থাকতেই ৬ উইকেটের বড় জয় তুলে নেয় ইংল্যান্ড। ৪৫ বলে ৮টি চার এবং ২টি ছক্কার মাধ্যমে ৭৭ রানের এক দুর্দান্ত ইনিংস উপহার দেন জস বাটলার। বাটলারের এই দারুন পারফরম্যান্সের সুবাদের ইংল্যান্ড সিরিজ জয় নিশ্চিত করলো।

    এর আগে দলের ১৯ রানের সময় আউট হয়ে যান ইংল্যান্ড দলের ওপেনার জনি বেয়ারস্টো। মিচেল স্টার্কের বলে তিনি হিট উইকেট হয়ে সাজঘরে ফেরেন।

    বেয়ারস্টো আউট হওয়ার পর বাটলারের সাথে জুটি গড়েন ডেভিড মালান। তাদের ৮৭ রানের একটি বড় সংগ্রহ উপহার দেয় ইংল্যান্ডকে।

    ব্যক্তিগত ৪২ রানের সময় অ্যাগারের বলে স্টয়নিসের হাতে ক্যাচ তুলে দিয়ে আউট হয়ে যান ডেভিড মালান। ইংল্যান্ড দলের রান তখন ২ উইকেটে ১০৬।

    পরবর্তীতে ব্যাটিং করতে নেমে বেশি সুবিধা করতে পারেননি টম ব্যান্টন এবং অধিনায়ক ইয়ন মরগান। তারা দুইজন যথাক্রমে ২ রান এবং ৭ রান করে আউট হয়ে যান। কিন্তু জস বাটলার একাই ম্যাচের হাল ধরে ছিলেন।

    এরপর বাটলারের সঙ্গ দিতে ব্যাটিংয়ে নামেন মঈন আলি। খেলার শেষ অবধি জস বাটলার এবং মঈন আলি অপরাজিত থেকে ইংল্যান্ডের জয় নিশ্চিত করে মাঠ ত্যাগ করেন।

    Facebook Comments

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    বিদায় ফুটবল ঈশ্বর!

    ২৫ নভেম্বর ২০২০

    আর্কাইভ

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
     
    ১০১১১২১৩১৪১৫
    ১৬১৭১৮১৯২০২১২২
    ২৩২৪২৫২৬২৭২৮২৯
    ৩০৩১