• শিরোনাম

    টানা ১৮ ঘন্টা ম্যারাথন জেরার মুখে শৌভিক চক্রবর্তী :

    সোমবার ফের ইডি অফিসে ডাক রিয়া চক্রবর্তীর, শমন প্রেরণ

    অমৃতস্য সাগরিকা, গুয়াহাটি, অসম, ভারত | ১০ আগস্ট ২০২০


    সোমবার ফের ইডি অফিসে ডাক রিয়া চক্রবর্তীর, শমন প্রেরণ

    রিয়া চক্রবর্তীর পরই ভাই শৌভিক চক্রবর্তী ইডির জেরার মুখে! টানা ১৮ ঘন্টা ইডি অফিসার জেরা করেছে শৌভিককে।

    কিন্তু তাঁর কোন উত্তরই ঠিক রিয়ার মতোই মনোপুত হয়নি। আজ সোমবার ফের হাজির হতে হবে দুই ভাই-বোনকে ইডির অফিসে।


    গত ৭ আগস্ট কয়েকদিন আত্মগোপনে থাকার পর সাদা ওড়নায় মুখ ঢেকে অফিসে হাজির হয়েছিলেন সুশান্তের বান্ধবী রিয়া চক্রবর্তী।

    টানা ৮ ঘন্টা এদিন তাঁকে জেরা করেছে ইডি। কিন্তু মানসিক ভারসাম্য হারানোর মতোই কথাবার্তা ছিল রিয়ার।


    তিনি জানান, তাঁর কোনকিছুই মনে পড়ছে না। সর্বভারতীয় সংবাদ সূত্রে খবর, মুম্বাই পুলিশের সঙ্গে দফায় দফায় রিয়ার কথা হয়েছে ফোনে, এসএমএস চালচালি হয়েছে! সেই কললিস্ট রেকর্ড করা হয়েছে ইতিমধ্যে।

    একজন উচ্চপদস্থ অফিসারের সঙ্গে অভিনেত্রী রিয়া চক্রবর্তীর কী এমন গোপন কথা থাকতে পারে?


    সুশান্ত সিং রাজপুতের বাবা কেকে সিংয়ের এফআইআর দায়েরের পরই রিয়া-মুম্বাই পুলিশ এবং মহারাষ্ট্রের শিবসেনা সরকার নড়েচড়ে বসেছে।

    বিহার সরকার নীতিশ কুমারের সঙ্গে শিবসেনা উদ্ধব ঠাকরের শীতল যুদ্ধ শুরু হয়ে গেছে।

    শিবসেনার পক্ষ থেকে দাবী করা হচ্ছে, দিল্লি এবং বিহার মহারাষ্ট্রের বিরুদ্ধে রাজনৈতিক ষড়যন্ত্রে লিপ্ত হয়েছে।

    কিন্তু ভারতবাসী প্রতিটি পদক্ষেপ লক্ষ্য রেখেছে, যে বিহার পুলিশকে কতভাবে হেনস্থা করেছে মুম্বাই পুলিশ।

    সুশান্ত মৃত্যুর ময়নাতদন্তের রিপোর্ট বিহারের তদন্তকারী পুলিশের হাতে তুলে দেয়নি মুম্বাই পুলিশ! শুধু হতাই নয়, অফিসার বিনয় তিওয়ারিকে জোরপূর্বক কোয়ারেন্টাইন করে রাখা হয়েছিল।

    করোনা-কোয়েরন্টাইনের আড়ালে কি ঢাকতে চাইছে মহারাষ্ট্র সরকার, মুম্বাই পুলিশ?

    কেন রিয়া চক্রবর্তী বিহার পুলিশের তদন্ত চান না? কেন তিনি মুম্বাই পুলিশের উপর এত বিশ্বাসী?

    সুশান্র সিং পরিবারের আইনজীবী বলেছেন, নিশ্চয়ই মুম্বাই পুলিশে এমন কেউ আছেন, যিনি রিয়া কে সাহায্য করবেন!

    এদিকে, টানা ১৮ ঘণ্টা এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট (ইডি)–‌এর দপ্তরে জেরা করা হয় রিয়া চক্রবর্তীর ভাই শৌভিক চক্রবর্তীকে। এদিকে শনিবার দুপুরে ইডি–‌র অফিসে ঢুকতে দেখা গিয়েছিল রিয়ার ভাই শৌভিককে। সেখানেই রাতভর জিজ্ঞাসাবাদের পর রবিবার সকাল ৭টা নাগাদ ইডি দপ্তর থেকে বের হন তিনি। টানা ১৮ ঘণ্টা জেরা করা হয় শৌভিককে।

    এছাড়াও রিয়াকে শনিবারই ফের শমন পাঠানো হয়েছে, সোমবার তাঁকে ফের হাজিরা দিতে হবে ইডি’অফিসে।

    Facebook Comments

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আর্কাইভ

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
     
    ১০১১১২১৩১৪১৫
    ১৬১৭১৮১৯২০২১২২
    ২৩২৪২৫২৬২৭২৮২৯
    ৩০৩১