• শিরোনাম

    স্বাস্থ্যবিধি মেনে ১৬ অক্টোবর থেকে খুলছে সিনেমা হল

    সাবিকুন্নাহার কাঁকন | ২২ সেপ্টেম্বর ২০২০


    স্বাস্থ্যবিধি মেনে ১৬ অক্টোবর থেকে খুলছে সিনেমা হল

    করোনা (কোভিড-১৯) সংক্রমণ পরিস্থিতির অবনতি না হলে স্বাস্থ্যবিধি মেনে আগামী ১৬ই অক্টোবর থেকে সিনেমা হলগুলো খুলে দেয়া হবে। সোমবার (২১ সেপ্টেম্বর) সচিবালয় এ চলচ্চিত্র প্রদর্শক সমিতির সাথে বৈঠক এর পর তথ্যমন্ত্রী হাছান মাহমুদ সাংবাদিকদেরকে এই তথ্য জানিয়েছেন।

    তথ্যমন্ত্রী বলেছেন, সিনেমা হলগুলো খোলার বিষয়ে দীর্ঘদিনযাবত আলোচনা চলছে। আগস্ট এর শুরুর দিকে এ বিষয়ে একটি বৈঠক হয়েছিলো। সে বৈঠক এ বলা হয়েছিলো ১৫ই সেপ্টেম্বর এর পর আলোচনা করে এ ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেয়া হবে। সে মর্মে গতকাল বিস্তারিত আলোচনা হয়েছে।


    তিনি জানান, আলোচনাসাপেক্ষে যে ঐকমত্য এ উপনীত হওয়া গেছে তা হলো, করোনা পরিস্থিতি এখন যে পর্যায়ে আছে তার থেকে কমতির দিকে গেলে আগামী ১৬ই অক্টোবর থেকে সিনেমা হল খুলে দেয়া হবে। তবে এই বিষয়ে অবশ্যই প্রধানমন্ত্রীর সম্মতি গ্রহণ করে সিদ্ধান্ত নেয়া হবে।

    হাছান মাহমুদ আরোও বলেছেন, সিনেমা হল খুলে দেয়া হলে স্বাস্থ্যবিধি মেনেই খোলা হবে। প্রতিটি হলের ধারণ ক্ষমতার অর্ধেক দর্শক নিয়ে সিনেমা হল চালু করা হবে। তবে আসন বিন্যাস এর ব্যাপারে আলোচনা চলছে। এ ব্যাপারে যে সিদ্ধান্ত নেয়া হবে সেভাবেই আসন বিন্যাস করা আবশ্যকীয় বলে গন্য হবে।


    বর্তমান প্রেক্ষাপটে ইতিবাচক সিদ্ধান্ত গ্রহণ করলেও যদি করোনা পরিস্থিতি অবনতির দিকে যায় তাহলে সিদ্ধান্ত পরিস্থিতির উপর নির্ভর করে ভিন্ন হবে বলে জানান তিনি।

    তিনি জানান, সকল বিনোদনকেন্দ্র খুলে দেয়া হয়েছে। যাত্রী পরিবহন এর ক্ষেত্রে আগে যে বিধিনিষেধ ছিল তাও তুলে নেয়া হয়েছে। সাধারণ সময়ের মতই যাত্রী পরিবহন অব্যাহত আছে।সিনেমার সাথে অনেক শিল্পী, কলাকুশলীসহ বহু মানুষ এই কর্মসংস্থান এ যুক্ত আছেন। সেইসাথে পরিস্থিতিও ধীরে ধীরে স্বাভাবিক হচ্ছে।আর সে কারণেই এ সিদ্ধান্তে উপনীত হওয়া।


    একটাসময় বাংলাদেশে ১ হাজার ২০০টি সিনেমা হল ছিল। যা কমতে কমতে আজ ২০০-২৫০টির মধ্যে সীমাবদ্ধ হয়েছে। সিনেমা হলগুলো চলচ্চিত্র শিল্পের প্রাণ। হলগুলো না থাকলে সিনেমা বানিয়ে তা প্রদর্শন এর জায়গা থাকবেনা।

    তথ্যমন্ত্রী আরও বলেছেন, বন্ধ হওয়া সিনেমা হলগুলো পুনরায় চালু করা, হলগুলোর আধুনিকায়ন ও নতুন সিনেমা হল কেউ নির্মাণ করতে চাইলে স্বল্প সুদে দীর্ঘ মেয়াদী বিশেষ তহবিল গঠন করার জন্য প্রধানমন্ত্রীর কাছে অনুমোদন চাওয়া হলে তিনি বিশেষ তহবিল গঠন এর ব্যাপারে অনুমোদন দিয়েছেন।

    Facebook Comments

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    বিদায় ফুটবল ঈশ্বর!

    ২৫ নভেম্বর ২০২০

    আর্কাইভ

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
     
    ১০১১১২১৩১৪১৫
    ১৬১৭১৮১৯২০২১২২
    ২৩২৪২৫২৬২৭২৮২৯
    ৩০৩১