• শিরোনাম

    হজে বাংলাদেশিদের শতভাগ ভিসা দেওয়া হবে: সৌদি পররাষ্ট্রমন্ত্রী

    দি গাংচিল ডেস্ক | ১৬ মার্চ ২০২২


    হজে বাংলাদেশিদের শতভাগ ভিসা দেওয়া হবে: সৌদি পররাষ্ট্রমন্ত্রী

    এবার হজে বাংলাদেশিদের শতভাগ ভিসা দেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন সৌদি আরবের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ফয়সাল বিন ফারহান আল সাউদ। তিনি বলেছেন, যাঁরা হজে যাবেন, তাঁরা যাতে এ দেশেই ভিসা-সংক্রান্ত যাবতীয় আনুষ্ঠানিকতা পূর্ণ করে যেতে পারেন, সেই ব্যবস্থা নেওয়া হবে। 

    রাজধানীর একটি হোটেলে দুই দেশের প্রথম রাজনৈতিক পরামর্শক সভা শেষে সৌদি আরবের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ফয়সাল বিন ফারহান আল সাউদ বলেন, বাংলাদেশের সঙ্গে ভ্রাতৃত্বপূর্ণ সম্পর্ক নিয়ে আমরা বেশ গর্বিত। আর আমাদের সম্পর্কের ভবিষ্যৎ নিয়ে আমরা বেশ আশাবাদী। আমাদের মধ্যে বেশ ভালো রাজনৈতিক পরামর্শক সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। সেখানে বিভিন্ন বিষয়ে দুই দেশের মধ্যে আলোচনা হয়েছে। তবে সবচেয়ে জরুরি হচ্ছে যে আমরা আমাদের ভিশনের বিষয়ে সম্পূর্ণ এক পথে রয়েছি।


    বাংলাদেশের ভবিষ্যতের বিষয়ে সৌদি আরব বেশ আশাবাদী জানিয়ে সাউদ বলেন, আমরা নিজ নিজ অঞ্চল এবং বৈশ্বিক নিরাপত্তা ও স্থিতিশীলতা নিশ্চিতে একত্রে কাজ করব। বৈঠকে আমরা দুই দেশের অংশীদারিত্বকে আরও বিস্তৃত করা নিয়ে আলোচনা করেছি। আমাদের ঐতিহাসিক শক্তিশালী সম্পর্ক রয়েছে। প্রায় ২৫ লাখ বাংলাদেশি সৌদি আরবে বসবাস করছেন এবং সেখানের উন্নয়নযাত্রায় অবদান রাখছেন। সৌদি অনেক প্রতিষ্ঠান ইতিমধ্যে বেশ ভালো পরিমাণ বিনিয়োগ নিয়ে বাংলাদেশে এসেছে। এ সম্পর্ক আরও এগিয়ে নিতে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ।

    এই সময়ে ইউক্রেন সংকটের কারণে তেল সরবরাহ নিয়ে ফয়সাল বিন ফারহান আল সাউদ বলেন, স্থিতিশীল তেলের বাজারের বিষয়ে আমরা প্রতিশ্রুতিবদ্ধ। সব নির্দেশনাই বলছে, তেলের সরবরাহ নিয়ে কোনো ধরনের উদ্বেগ নেই।


    প্রথমবারের মতো বাংলাদেশ ও সৌদি আরব রাজনৈতিক পরামর্শক সভা করেছে জানিয়ে পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আব্দুল মোমেন বলেন, ‘বৈঠকে অনেকগুলো বিষয় আমরা আলোচনা করেছি। সৌদি আরব সবুজায়নের বিষয়ে কাজ করছে। শুধু সৌদি আরবের মধ্যে নয়, বরং পুরো মধ্যপ্রাচ্যে ৫ হাজার কোটি গাছ লাগাবে দেশটি। এর মধ্যে ১ হাজার কোটি সৌদি আরবের মধ্যে, বাকি ৪ হাজার কোটি মধ্যপ্রাচ্যে। এখানে অংশীদারিত্বের জন্য বাংলাদেশ প্রস্তাব করেছে। বাংলাদেশ গাছ দেওয়ার পাশাপাশি এর রক্ষণাবেক্ষণ করতে চায়।’

     


    সৌদি আরবের জন্য অর্থনৈতিক অঞ্চল দেওয়ার বিষয়ে জানিয়ে এ কে আব্দুল মোমেন বলেন, ‘বাংলাদেশে অর্থনৈতিক অঞ্চলে সৌদি আরব বিনিয়োগ করতে চাইলে সব ধরনের সহযোগিতা করা হবে। ইতিমধ্যে ২০টি সৌদি প্রতিষ্ঠান বাংলাদেশে বিনিয়োগ নিয়ে আসার আগ্রহ দেখিয়েছে। এ বিষয়ে কাজ চলছে, যা দ্রুত বাস্তবায়িত হবে বলে আশা করি।

    দুই দেশের সম্পর্ক বেশ শক্তিশালী জানিয়ে এ কে আব্দুল মোমেন বলেন, ‘খাদ্য নিরাপত্তা নিয়ে বৈঠকে আলোচনা হয়েছে। এ বিষয়ে সৌদি আরব কাজ করছে। বাংলাদেশও খাদ্য নিরাপত্তায় জোর দিচ্ছে। বাংলাদেশ এ বিষয়ে সৌদি আরবের সঙ্গে কাজ করবে। বিভিন্ন দেশে সৌদি আরব কন্ট্রাক্ট ফার্মিংয়ের বিষয়ে কাজ করছে। এতে অংশীদার হতে প্রস্তাব দিয়েছে বাংলাদেশ।’

    সৌদি আরবের দেওয়া শিক্ষাবৃত্তিতে পর্যাপ্ত শিক্ষার্থীরা যাচ্ছে না জানিয়ে পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, সৌদি আরব বাংলাদেশি শিক্ষার্থীদের গত বছরের জন্য ২৬৫টি বৃত্তি দিয়েছিল। এর মধ্যে মাত্রা ৮০ জন গিয়েছেন। কেন বাকিরা গেলেন না, তা নিয়ে কাজ করতে হবে। বাংলাদেশও সৌদি শিক্ষার্থীদের বাংলাদেশে পড়তে আসার জন্য আহ্বান জানিয়েছে।

    মঙ্গলবার সন্ধ্যা ৫টা ৫৫ মিনিটে সৌদি আরবের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ফয়সাল বিন ফারহান আল সাউদকে বহনকারী উড়োজাহাজটি হজরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অবতরণ করে। সন্ধ্যা ৬টা ৭ মিনিটে বিমানবন্দরে তাঁকে স্বাগত জানান পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আব্দুল মোমেন, পররাষ্ট্রসচিব মাসুদ বিন মোমেন, সৌদি আরবে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত মোহাম্মদ জাবেদ পাটোয়ারী এবং বাংলাদেশে সৌদি আরবের রাষ্ট্রদূত ইসসা ইউসেফ ইসসা আল দুহাআলান। দুই দিনের সফরে ঢাকায় এসেছিলেন সৌদি পররাষ্ট্রমন্ত্রী। মঙ্গলবার রাতে পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আব্দুল মোমেনের পক্ষ থেকে সৌদি আরবের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ফয়সাল বিন ফারহান আল সাউদের সম্মানে নৈশভোজের আয়োজন করা হয়।

    বুধবার বাংলাদেশ ও সৌদি আরবের মধ্যে প্রথমবারের মতো পররাষ্ট্রমন্ত্রী পর্যায়ের বৈঠক ‘পলিটিক্যাল কনসালটেশন বা রাজনৈতিক পরামর্শক সভা’ অনুষ্ঠিত হয়। দুই দেশের আনুষ্ঠানিক বৈঠকের আগে সকাল সাড়ে ৯টায় গণভবনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ করেন সৌদি আরবের পররাষ্ট্রমন্ত্রী। দ্বিপক্ষীয় সভা শেষে দুই দেশের মধ্যে একটি চুক্তি ও একটি সমঝোতা সই হয়। দুই দেশের মধ্যে দ্বৈত কর প্রত্যাহার নিয়ে একটি চুক্তি এবং বাংলাদেশের ফরেন সার্ভিস একাডেমি ও বাদশাহ ফয়সাল ইনিস্টিটিউটের মধ্যে সহযোগিতা নিয়ে একটি সমঝোতা সই হয়। এ ছাড়া কেরানীগঞ্জে ইসলামিক আরবি বিশ্ববিদ্যালয়ে একটি ভাষা ইনস্টিটিউট নির্মাণে ভার্চুয়ালি ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেন সৌদি আরবের পররাষ্ট্রমন্ত্রী।

    বুধবার দুপুরে ঢাকা ছেড়ে যান সৌদি আরবের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ফয়সাল বিন ফারহান আল সাউদ। এ সময় বিমানবন্দরে তাঁকে বিদায় জানান পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আব্দুল মোমেন।

    Facebook Comments

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আজ শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবস

    ১৪ ডিসেম্বর ২০২০

    আর্কাইভ

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
     
    ১০১১১২১৩
    ১৪১৫১৬১৭১৮১৯২০
    ২১২২২৩২৪২৫২৬২৭
    ২৮২৯৩০৩১